নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে কুমিল্লায় মানববন্ধন ও পদযাত্রা

সারাদেশে ঘটে যাওয়া একের পর এক নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে কুমিল্লায় মানববন্ধন ও পদযাত্রা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়৷

সোমবার (৫ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় কুমিল্লা টাউনহল গেইটে এ কর্মসূচি পালিত হয়৷

এতে অংশ নেয় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়সহ (কুবি) কুমিল্লার অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ।

পরবর্তীতে মানববন্ধনটি টাউনহল থেকে পদযাত্রা করে নিউমার্কেট হয়ে কুমিল্লা প্রেসক্লাবে গিয়ে শেষ হয়।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মো. তরিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন জজকোর্টের আইনজীবী মানিক ভৌমিক, স্থানীয় গৃহকর্ত্রী পান্না রানী দে সহ কুবি ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের শিক্ষার্থীরা।

নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে কুমিল্লায় মানববন্ধন ও পদযাত্রা

মানববন্ধনে আইনজীবী মানিক ভৌমিক গত রাতে ভাইরাল ভিডিও’র ব্যাপারে বলেন, “বর্তমানে ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদকের নিজের জেলায় (নোয়াখালী) যদি নারীরা নিরাপদে না থাকতে পারে তাহলে এ দায়ভার কার?

ছাত্রজীবনে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলাম, রাজপথে ছিলাম। এখন কর্মজীবনে এসে যদি দেখি দল ক্ষমতায় থাকাকালীন নারীদের নিরাপত্তা না থাকে, এটা খুবই কষ্টকর।”

গৃহকর্ত্রী পান্না রানী দে বলেন, “আমি একটা কাজে বাসা থেকে বের হয়েছিলাম। যখন দেখলাম ছাত্ররা ধর্ষণের প্রতিবাদ করছে, তখন আমিও এতে শামিল হলাম।

আজ নারীদের নিরাপত্তা কোথায়! আমি জানি না আমি নিরাপদে বাসায় ফিরতে পারবো কিনা। ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।”

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন কুবি শিক্ষার্থী শামীম আহমেদ, সাইফুল ইসলাম সাইফ, এম কে আলম সাইফ প্রমুখ ও স্থানীয় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীবৃন্দ।

উল্লেখ্য, গতকাল রবিবার (৪ অক্টোবর) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে একজন নারীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হয়।

এছাড়াও সম্প্রতি সিলেটের এমসি কলেজেও একজন গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হন।

/আল আমিন

সর্বশেষ

Leave a Reply