বেরোবি প্রতিনিধি
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়(বেরোবি) শাখা ছাত্রলীগের সাথে বহিরাগত (স্থানীয়) ছাত্রলীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাত ৮ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে এ ঘটনা ঘটে।
বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, গত ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের মামলায় গ্রেফতার হন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল আজম ফাইন। গ্রেফতারের ২২ দিন পর আজ জামিনে মুক্তি পেয়ে সে তার দলবল নিয়ে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র সহ বঙ্গবন্ধু হলে হামলা চালায়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে তাকে প্রতিহত করতে গেলে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে তাজহাট থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়ন করা হয়                                                                                       ছবি> এমসিজে নিউজ

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক নোবেল শেখ একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির সামনে এসে অভিযোগ করে বলেন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল আজম ফাইন তার অনুসারীদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করছে। এসময় বহিরাগতদের দিয়ে ক্যাম্পাসে হামলার অভিযোগ তুলে তিনি আল্টিমেটাম দিয়ে বলেন, আজ রাতের মধ্যে তাদের গ্রেফতার করা না হলে আগামীকাল থেকে সকল ক্লাশ পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে। এবিষয়ে তাজহাট থানার ওসি শেখ রোখনুজ্জামান বলেন, ‘দুপক্ষের সংঘর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে তাজহাট থানা পুলিশ তা নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’ ছাত্রলীগের আল্টিমেটামের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন দেখবে। এবিষয়ে কোন সহযোগিতা চাইলে তাজহাট থানা পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে’। এদিকে সংঘর্ষ ও আল্টিমেটামের বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোঃ আতিউর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি বাহিরে রাস্তায় আছি, ক্যাম্পাসে গিয়ে এ বিষয়ে সিন্ধান্ত জানানো হবে’।

এফ/০৫৮

Leave a Reply