বাংলাদেশের বিপক্ষে শেন ওয়ার্ন

0
171
আশরাফুলকে আউট করে শেন ওয়ার্নের উদযাপন। ছবি- গেটি ইমেজস।
মোদাব্বির হাশমি ও অনন মজুমদার
মাত্র ১২ ঘণ্টা আগেও যে মানুষটি অন্যের মৃত্যুতে বেদনা প্রকাশ করছিলেন, তার মৃত্যুতেই এখন শোকে কাতর পুরো দুনিয়া। বিশ্বের তাবৎ ক্রিকেট ভক্তদের কাঁদিয়ে মাত্র ৫২ বছর বয়সে পৃথিবী ছেড়ে পাড়ি জমিয়েছেন সর্বকালের সেরা ক্রিকেটারদের মধ্যে একেবারে শীর্ষ সারিতে নাম লেখানো কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন।
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার অভিষেক হয় ১৯৯২ সালের ২ জানুয়ারি, ভারতের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে। ১৪৫টি টেস্টে ৭০৮ উইকেট নিয়েছেন ওয়ার্ন। ১৯৪টি ওয়ানডেতে দখলে নিয়েছেন ২৯৩ উইকেট। বল হাতে বিধ্বংসী এই স্পিনার ক্রিকেট থেকে অবসর নেন ২০০৭ সালে।

তবে, তার এই লম্বা ক্যারিয়ারে বাংলাদেশের সাথে তার দেখা খুব বেশি হয়নি। তবে এর মাঝেই দেখিয়েছেন নিজের ভেলকি। মাঠের দেখায় মোকাবেলা যেমনই হোক, ইন্টারনেটে বরাবর সরব থাকা এই মহারথী বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে কথা বলেছেন বহুবার। বিপদে দাঁড়িয়েছেন পাশে, দিয়েছেন অনুপ্রেরণাও।


শেন ওয়ার্ন এর বাংলাদেশের সাথে খেলা শুরু ১৯৯৯ সালে ওয়ানডে ক্রিকেট দিয়ে। ১৯৯৯ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের সাথে দুইটি টেস্ট ম্যাচ এবং দুইটি ওয়ানডেতে মাঠে নেমেছিলেন তিনি।
বাংলাদেশের সাথে ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ১৯৯৯ এবং ২০০২ সালে একটি করে মোট দুইটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেন। এর মধ্যে, ১৯৯৯ সালের ওয়ার্ল্ড কাপে চেস্টার লি স্ট্রিটে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম মাঠে নামেন শেন ওয়ার্ন । আর ২০০২ সালে কলোম্বোতে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে দ্বিতীয় বারের মতো বাংলাদেশের মুখোমুখি হন তিনি।
ওই দুই ম্যাচে মোট ২০ ওভার বল করেন তিনি। যার মধ্যে চারটি ছিল মেডেন ওভার। দুই ম্যাচে মোট রান দিয়েছিলেন ৫১ আর পেয়েছিলেন দুইটি উইকেট। তবে ওয়ানডে ক্রিকেটের এই দুই ম্যাচের এক ইনিংসেও তিনি বংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাট করতে পারেননি।
২০০৬ সালে দুই টেস্টের একটি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসে অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের প্রথম ম্যাচ হয় ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে আর দ্বিতীয় ম্যাচ হয় চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে।
এ টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশের সাথে শেন ওয়ার্নের রয়েছে দারুণ এক অধ্যায়। সিরিজের বোলিং ফিগারে তিনি ২ ম্যাচে ইনিংস খেলেন মোট ৪ টি। ৪৭.২ ওভার বল করেছিলেন যার ১২ ওভারই ছিল মেডেন। আর  ৩০০ রান খরচ করে তুলে নিয়েছিলেন ১১ উইকেট।
এক ইনিংসে  ১১৩ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট নেন এবং এক ম্যাচে নেন ৮ উইকেট। পাশাপাশি প্রথমবারের মতো নিজের ক্যারিয়ারে এক ইনিংসে ৫ উইকেট নেন।
বিশ্বদরবারে যে অল্প কয়েকজন মহারথী প্রায়ই বাংলাদেশ নিয়ে কথা বলেন, তাদের একজন ছিলেন শেন ওয়ার্ন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব এই কিংবদন্তি  ২০১৫ বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে খেলায় আম্পায়ারদের ভুল সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কথা বলেছিলেন।
ওই বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিন্দনীয় আম্পায়ারিংয়ে বাংলাদেশের সান্ত্বনা শুধু এটুকুই যে, ধারাভাষ্যের সময় অজি এই কিংবদন্তি আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তকে চিহ্নিত করেছিলেন, সমালোচনা করেছিলেন।

 

বাংলাদেশের বিপক্ষে শেন ওয়ার্ন
বরিশালের এক শিশুকে নিয়ে শেন ওয়ার্নের করা টুইট।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খুবই সরব ছিলেন ওয়ার্ন। গত বছর নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে বরিশালের ছয় বছর বয়সী শিশু আসাদুজ্জামান সাদিদের লেগ স্পিন বোলিংয়ের একটি ভিডিও চিত্র শেয়ার করেন, প্রসংশাও করেন। যা তখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচুর আলোচিত হয়।

/নোবেল

 

 

 

Leave a Reply