গোপালগঞ্জে জবি শিক্ষার্থীর অস্বাভাবিক মৃত্যু

গোপালগঞ্জে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে বাড়ির পাশে একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত অমিতোষ হালদার সাহাপুর ইউনিয়নের পাটকেলবাড়ি গ্রামের গোপেন্দ্র হালদার ও গিতা হালদারের সন্তান।। চার ভাইবোনের মধ্যে সবার ছোট ছিলেন তিনি। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন অমিতোষ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রায় এক মাস আগে ঢাকা থেকে বাড়িতে ‌আসেন অমিতোষ। বাড়িতে অনেকটা চুপচাপ থাকতেন তিনি।  গতকাল বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতের বেলায় বাবা-মাকে ঘরে তালাবদ্ধ করে সে গাছের ডালে দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে কয়েকপাতা সুইসাইড নোটও পাওয়া গেছে।

মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্ত শেষে দুপুরে তার মরদেহ স্বজনদের কাছে বুঝিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

তবে কেন ও কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানায় পুলিশ।

 

সর্বশেষ

Leave a Reply