হিজাব পরে স্কুল-কলেজে যেতে না দেওয়া ভয়ঙ্কর ব্যাপার: মালালা

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় কর্ণাটক রাজ্যে হিজাবের উপর নিষেধাজ্ঞা নিয়ে প্রতিবাদরত মুসলিম নারী শিক্ষার্থীদের সমর্থনে টুইট করেছেন পাকিস্তানের নারী শিক্ষা অধিকারকর্মী নোবেল বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই। মালালা মেয়েদের হিজাব পরে স্কুল, কলেজে যেতে না দেওয়া ভয়ঙ্কর ব্যাপার হিসেবে উল্লেখ করেছেন তাঁর এই টুইটে৷
মঙ্গলবার নিজের টুইটারে মালালা আরও লিখেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো আমাদেরকে পড়াশোনা ও হিজাবের মধ্যে যেকোনো একটিকে পছন্দ করতে বাধ্য করছে। মেয়েদেরকে হিজাব পরে স্কুলে যেতে না দেওয়াটা ভয়ংকর।… ভারতীয় নেতৃবৃন্দের মুসলিম মেয়েদের কোনঠাসা করার এই প্রচেষ্টা বন্ধ করা উচিত।
হিজাব পরে স্কুল-কলেজে যেতে না দেওয়া ভয়ঙ্কর ব্যাপার: মালালা
মালালা ইউসুফজাইয়ের টুইটার পোস্ট
উল্লেখ্য, সম্প্রতি ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের কয়েকটি কলেজে নারী শিক্ষার্থীদের হিজাব পরা নিষিদ্ধ করা হয়। যার ফলে কয়েক সপ্তাহ ধরেই প্রতিবাদ করে আসছিল সেসব কলেজের নারী শিক্ষার্থীরা।
ইতোমধ্যে হিজাব পরার উপর এই নিষেধাজ্ঞার পক্ষ-বিপক্ষে ভারতের অনেক জায়গায় ধর্মীয় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার পাশাপাশি বেশ কিছু সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে৷ এসব সংঘর্ষে কয়েকজন আহতও হয়েছে।
হিজাব পরে স্কুল-কলেজে যেতে না দেওয়া ভয়ঙ্কর ব্যাপার: মালালা
হিজাব পরার অধিকার চেয়ে শিক্ষার্থীদের অবস্থান। ছবি: বিবিসি নিউজ
পাশাপাশি কর্ণাটক রাজ্যের উচ্চ আদালতেও এক মুসলিম ছাত্রী হিজাব পরাকে ভারতের সংবিধান দ্বারা নিশ্চিত করা একটি মৌলিক অধিকার হিসেবে উল্লেখ করে আবেদন করেছেন।
এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য রাজ্যের কর্তৃপক্ষ তিনদিনের জন্য সব হাইস্কুল এবং কলেজে ছুটি ঘোষণা করেছে৷ কর্ণাটক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বসবরাজ বোমাই সকল ছাত্র, শিক্ষক এবং কর্ণাটকের জনগণকে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার অনুরোধ করে এই বন্ধ ঘোষণা করেন।
সূত্র: বিবিসি নিউজ
/মারজিয়া

সর্বশেষ

Leave a Reply