‘লুঙ্গি পরে’ পরীক্ষা দিতে বসা শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার

লুঙ্গি পরে অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণের অভিযোগে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের  বহিষ্কৃত পাঁচ শিক্ষার্থীর বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। এই শিক্ষার্থীরা নির্ধারিত রুটিন অনুযায়ী সেমিস্টারের বাকী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন এবং গত ২৭ সেপ্টেম্বর বহিষ্কৃত হওয়া ওই কোর্সের পরীক্ষাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী পরবর্তী সময়ে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখার পরিচালক শ্রীপতি সিকদার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়।

তবে এই বিজ্ঞপ্তিতে লুঙ্গি পরে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের কারণে ওই শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার করার বিষয়টি সঠিক নয় উল্লেখ করে বলা হয়, মূলত জুম কানেকটিভিটি ও ক্যামেরা প্লেসিংয়ের সমস্যার কারণে তাঁদের ‘সাময়িকভাবে বিরত’ রাখা হয়েছিল।

এ বিষয়ে  ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন সাজ্জাদ হোসেন জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোকে বলেন, শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার করা হয়নি। পরীক্ষা থেকে সাময়িক বিরত রাখা হয়েছিল। এ বিষয়ে প্রশাসন ইতিমধ্যে লিখিত বক্তব্য দিয়েছে। শিক্ষার্থীরা পরবর্তী পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন এবং ওই দিনের পরীক্ষাও পরবর্তী সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ২৭ সেপ্টেম্বর দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড প্রসেস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০ ও ১৭তম ব্যাচের সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা চলছিল। এ সময় পরীক্ষায় অসদাচরণ, পরীক্ষার নিয়ম অনুসরণ না করা, রূঢ় আচরণ করা এবং সুপারভাইজারকে অসহযোগিতা করার কারণ দেখিয়ে পাঁচ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়। তবে বহিষ্কৃত হওয়া ওই শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, লুঙ্গি পরে পরীক্ষা দেওয়ার অভিযোগে তাঁদের বহিষ্কার করা হয়েছে। পরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে।

সর্বশেষ

Leave a Reply